IQ Option: ব্রোকারের পর্যালোচনা ও ট্রেডারের ফিডব্যাক 2020

4.5 / 5
5

এতো অল্প সময়ের মধ্যে এতো দ্রুত IQ Option-এর প্রসারের একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কারণ হলো এটি তার ট্রেডারদেরকে নতুন ও চমকপ্রদ পণ্য অফার করতে সক্ষম হয়েছিল। এছাড়াও, ব্রোকার একটি প্রোপ্রাইয়েটরি ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে যা অন্য কোনো প্ল্যাটফর্মের মতো না, যেগুলো আপনি অনলাইন ট্রেডিং ইন্ডাস্ট্রিতে সচরাচর দেখতে পাবেন। CySEC কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত, IQ Option অনলাইন ট্রেডিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ট্রেডারদেরকে একটি নিরাপদ ও সুরক্ষিত ট্রেডিং পরিবেশ দিয়ে থাকে।

সাধারণ তথ্য

IQ Option হলো একটি শীর্ষস্থানীয় অনলাইন ব্রোকার যা 2013 সালের মাঝামাঝি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। খুব অল্প কয়েক বছর ধরে কার্যক্রম পরিচালনা করা সত্ত্বেও, অনলাইন ট্রেডিং ইন্ডাস্ট্রিতে একটি অন্যতম দ্রুত বর্ধনশীল অনলাইন ব্রোকারেজ হিসেবে IQ Option সুনাম প্রতিষ্ঠিত করেছে। এই ব্রোকারের বর্তমানে 25 মিলিয়ন সক্রিয় অ্যাকাউন্টধারী রয়েছে এবং দৈনিক ভিত্তিতে ঐ সংখ্যাটি ধারাবাহিকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। IQ Option নিম্নলিখিত আর্থিক ইন্সট্রুমেন্টের জন্য অনলাইন ট্রেডিং সার্ভিস অফার করার জন্য বিশেষজ্ঞ: অপশনস, ফরেক্স, ETF।

সুবিধা ও অসুবিধা

সুবিধাবলী:

MiFID কমপ্লায়েন্ট ব্রোকার: IQ Option CySEC-এর আইনি অধিক্ষেত্রের অধীনে একটি নিয়ন্ত্রিত সাইপ্রাস ইনভেস্টমেন্ট ফার্ম (CIF)। এর মানে হলো, এই ব্রোকার MiFID-এর অধীনে সকল চুক্তি পূরণ করেছে।

প্রোপ্রাইটরি ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম: এর প্রোপ্রাইটরি ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মের সহায়তায়, ট্রেডারদের চাহিদা পূরণের জন্য IQ Option বেশ ভালো অবস্থানে আছে, কারণ প্ল্যাটফর্মটি যেভাবে তৈরি করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে তার উপর ব্রোকারটির অনেক বেশি নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য নমনীয় চাহিদা: IQ Option-এ একটি লাইভ ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট সর্বনিম্ন যে পরিমাণ অর্থ জমা করতে হয় তা হলো মাত্র 10 USD/GBP/EUR। সর্বনিম্ন $1 বিনিয়োগের মাধ্যমেই ট্রেড করা যায়।

ডেমো অ্যাকাউন্টের সুবিধা আছে: সত্যিকারের কোনো অর্থ জমা না করে যারা প্রথমে এই ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করে দেখতে চান তাদের জন্য IQ Option একটি ডেমো অ্যাকাউন্টের সুবিধা রেখেছে। ডেমো অ্যাকাউন্টে লাইভ অ্যাকাউন্টের মতো সকল ধরণের ফিচারই আছে, তবে এই অ্যাকাউন্টে আপনি শুধু সত্যিকারের অর্থের পরিবর্তে ভার্চুয়াল অর্থ দিয়ে ট্রেডিং করবেন। ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম পরীক্ষা করা ছাড়াও ডেমো অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি আপনার ট্রেডিং-এর দক্ষতাও তৈরি করতে পারবেন।

ট্রেডিং টুর্নামেন্ট: IQ Option নিয়মিতভাবে খুব অল্প এন্ট্রি ফি এবং মাঝারি মানের নগদ অর্থ পুরস্কার দেওয়ার মাধ্যমে ট্রেডিং টুর্নামেন্ট আয়োজন করে থাকে। ব্রোকারদের এই উপায়টি একে অনুগত গ্রাহকদের একটি ভিত্তি তৈরি করতে সাহায্য করেছে, যা তাদেরকে ট্রেডিং-এর প্রতিযোগিতা এবং পুরস্কার জয়ের রোমাঞ্চের জন্য আকৃষ্ট করে।

অসুবিধাসমূহ:

শুধুমাত্র এক ধরণের স্ট্যান্ডার্ড ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট: বর্তমানে, IQ Option শুধুমাত্র এক প্রকারের ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট অফার করে, যা একটি প্রকারের মাধ্যমে সকল ধরণের ট্রেডিং-এর জন্য উপযোগী।

শিক্ষা গ্রহণের জন্য সীমিত সংস্থান: IQ Option ওয়েবসাইটে প্রাপ্ত শিক্ষা বিষয়ক উপকরণগুলো শুধু ট্রেডিং ভিডিও দিয়ে গঠিত।

IQ Option ট্রেডিং-এর শর্তাবলী

ট্রেডিং-এর শর্তাবলীর আলোকে, IQ Option অনলাইন ট্রেডিং ইন্ডাস্ট্রিতে একটি অন্যতম সেরা ট্রেডিং-এর শর্তাবলী অফার করে। মাত্র $10 জমার পূর্বশর্ত ছাড়াও, এই ব্রোকারটি CySEC-এর অধীনে একটি নিয়ন্ত্রিত ব্রোকারও। এর অর্থ হলো, আপনার অর্থ এই ব্রোকারের কাছে নিরাপদ, কারণ এই অর্থ ব্রোকারের নিজস্ব অপারেশনাল ফান্ড থেকে আলাদা আলাদা অ্যাকাউন্টে রাখা হয়। CySEC নিয়ন্ত্রিত পূর্বশর্তের বাইরে, এই ব্রোকারকে তার চুক্তির চাহিদা অনুযায়ী সর্বদা পর্যাপ্ত তারল্য বজায় রাখতে হয়।

আর্থিক ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মে IQ Option-কে কেনো সর্বোচ্চ পেআউট করা ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম হিসেবে বিবেচনা করা হয় তা ব্যাখ্যা করা অনেক বড় একটি বিষয়। শুধুমাত্র 2017 সালেই, এই ব্রোকার প্রতি মাসে গড়ে $10 মিলিয়ন উত্তোলনের পেআউট করেছে।

CySEC নিয়ন্ত্রিত একটি ব্রোকার হিসেবে, আপনার অর্থ ইনভেস্টর কম্পেনসেশন স্কিমের আওতায় সর্বোচ্চ 20,000 ইউরো পর্যন্ত কাভার করা আছে।

ট্রেডযোগ্য অ্যাসেট

নিম্নলিখিত অ্যাসেটগুলোর জন্য IQ Options 7টি ভিন্ন ভিন্ন শ্রেণির অ্যাসেট অফার করে থাকে। এগুলো কারেন্সি পেয়ার, কমোডিটি, ক্রিপ্টোকারেন্সি, ETF, মার্কেট ইনডিসেস, অপশনস ও শেয়ার দিয়ে গঠিত। ট্রেড করার জন্য IQ Options-এ আপনার জন্য 364টি ভিন্ন ভিন্ন প্রকারের আর্থিক ইন্সট্রুমেন্ট রয়েছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে:

ক্রিপ্টোকারেন্সি: ট্রেড করার জন্য 15 ধরণের ক্রিপ্টো রয়েছে, যার মধ্যে বিটকয়েন, ইথেরিয়াম, লাইটকয়েন ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত।

স্টক: স্টকগুলোতে রয়েছে NYSE এবং NASDAQ-এ তালিকাভুক্ত অনেক সেরা কোম্পানি রয়েছে। ট্রেড করার জন্য মোট 168টি।

অপশন: অপশন আপনাকে বাইনারি, ডিজিটাল ও এফএক্স অপশন ট্রেড করার সুযোগ দেয়। অনুগ্রহ করে মনে রাখবেন, বাইনারি ও ডিজিটাল অপশনগুলো শুধুমাত্র পেশাদার গ্রাহকদের জন্য পাওয়া যাবে।

ফরেক্স: ফরেক্সের মাধ্যমে আপনি সকল মেজর, মাইনর ও এক্সোটিকের 93টি জোড়ার উপর 30x লিভারেজ পাওয়ার সুযোগ পাবেন।

ইন্ডিসেস: ইন্ডিসেসের মাধ্যমে আপনি ডাউ জোন্স, S&P, FTSE ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ, এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার সেরা 11টি স্টক মার্কেটে ট্রেড করতে পারবেন।

কমোডিটি: আপনাকে CFD হিসেবে স্বর্ণ, তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস সহ 6টি কমোডিটিতে ট্রেড করার সুযোগ দেয়

ETF’s: ETF-এর মাধ্যমে 21টি ইন্ডেক্স, কমোডিটি ও অ্যাসেটের বাস্কেট ট্র্যাক করা এক্সচেঞ্জ-ট্রেড সিকিউরিটি ট্রেডিং করার জন্য x5 লিভারেজ নিন।

ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম

যেখানে অধিকাংশ অনলাইন ট্রেডিং ব্রোকাররা তাদের ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মের জন্য তৃতীয় পক্ষের সলিউশন ব্যবহার করে, তবে IQ Option তা করছে না। তারা তাদের নিজস্ব ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছে, যার সমতুল্য এই ইন্ডাস্ট্রিতে কেউ নেই। বস্তুত, সবচেয়ে বেশি উদ্ভাবনী এবং খুব বেশি ব্যবহার-বান্ধব হওয়ার কারণে IQ Option-এর তৈরি করা প্ল্যাটফর্মটি অনেক পুরস্কার জিতে নিয়েছে।

IQ Option কর্তৃক তৈরি করা ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম উইন্ডোজ ভিত্তিক পিসি বা ম্যাক কম্পিউটার উভয়ের জন্যই পাওয়া যাচ্ছে। যেসকল ট্রেডার মার্কেটে তাদের স্মার্টফোন ব্যবহার করে ট্রেড করতে চান তাদের জন্য IQ Option তাদের ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মের জন্য মোবাইল উপযোগী সংস্করণও তৈরি করেছে। আপনার স্মার্টফোনের ওএস-এর উপর নির্ভর করে মোবাইল ট্রেডিং অ্যাপটি অ্যাপল অ্যাপ স্টোর বা গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের প্রকারভেদ

বর্তমানে IQ Option-এর দুই ধরণের অ্যাকাউন্ট রয়েছে। এগুলো হলো স্ট্যান্ডার্ড অ্যাকাউন্ট এবং ডেমো অ্যাকাউন্ট। এই উভয় ধরণের ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের জন্যই সেগুলোতে প্রবেশ করার পূর্বে আপনাকে একটি রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ করতে হয়। ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের জন্য, কোনো জমা বা উত্তোলন করার পূর্বে আপনাকে আপনার পরিচিতি এবং ঠিকানা যাচাই করতে হয়। যদিও, কোনো ডেমো অ্যাকাউন্টকে লাইভ ট্রেডিং অ্যাকাউন্টে পরিণত করা খুবই সহজ, কারণ সেখানে শুধু কিছু নগদ অর্থ জমা করতে হয়।

IQ Option তাদের সাথে কোনো ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের জন্য সাইন করার বিষয়টি সকলের জন্য সহজ করে দিয়েছে। রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ করা ছাড়াও, আপনি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বা গুগল প্লাস অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে IQ Option-এর ওয়েবসাইটে সাইন ইন করতে পারেন।

জমা ও উত্তোলন

IQ Option অনেক পেমেন্ট পদ্ধতি সমর্থন করে। আপনি নিচের তালিকাতে প্রদত্ত পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে অর্থ জমা বা উত্তোলন করতে পারবেন: ব্যাংক ওয়্যার ট্রান্সফার, বোলেতো, ক্যাশইউ, ক্রেডিট কার্ড, ফাসাপে, আইডিল, নেটেলার, কিউই, স্ক্রিল, ওয়েবমানি।

পূর্বে, কোনো উত্তোলন করার জন্য 3 থেকে 4 কার্যদিবস সময় লাগে। কিন্তু বর্তমানে, IQ Option উত্তোলন প্রক্রিয়াজাত করার সময়টি কমিয়ে মাত্র এক দিন করেছে এবং উত্তোলন করার জন্য কোনো গোপন চার্জ নেই।

ট্রেডারদের শিক্ষা

ট্রেডারদের শিক্ষার জন্য IQ Option এক সেট পুর্ণাঙ্গ প্রশিক্ষণ ভিডিও প্রদান করেছে। বিভিন্ন বিষয়বস্তু অন্তর্ভুক্ত করে ভিডিও অংশে কয়েক ডজন ভিডিও আছে, যেমন “What is CFD?” থেকে শুরু করে ‘ট্রেড করার জন্য কীভাবে টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটরগুলো কীভাবে ব্যবহার করতে হয়’।

কাস্টোমার সাপোর্ট

IQ Option-এ 24/7 কাস্টোমার সাপোর্ট পাওয়া যায়। আপনি ইমেইল, ওয়েব কন্টাক্ট ফর্ম, লাইভ চ্যাট-এর মাধ্যমে বা তাদেরকে টেলিফোনে সরাসরি কল করার মাধ্যমে সাপোর্ট টিমের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। টেলিফোন সাপোর্টের জন্য, সারা পৃথিবীর অনেক দেশের জন্য নিজস্ব ভাষায় সহায়তার নম্বর আছে।

উপসংহার

IQ Option যে পরিষেবা ও পণ্য অফার করে সেগুলো নিশ্চিত করেছে যে, একজন অনলাইন ট্রেডারের যা যা প্রয়োজন তা তার আঙ্গুলের নিচের রয়েছে। ফ্রি ডেমো অ্যাকাউন্ট এবং স্বল্প জমা পূর্বশর্ত থাকার কারণে, IQ Option একজন ট্রেডারের জীবনকে চাপমুক্ত রাখার প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন করেছে। IQ Option আসার পূর্বে, আর্থিক ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মগুলো কোনো ফ্রি ডেমো প্ল্যাটফর্ম প্রদান করেনি। বস্তুত, কোনো ট্রেডার ডেমো অ্যাকাউন্টে সাইন ইন করার এবং তার ট্রেডিং অ্যাকাউন্টে জমা করার পর প্রবেশ করতে পারবেন। তবে, IQ Option-এর ক্ষেত্রে বিষয়টি এমন নয়। এই ব্রোকার সকলের জন্য সাইন ইন প্রক্রিয়াটি সহজ করে দিয়েছে। ট্রেডারদের হৃদয় ও মন জয় করার জন্য যা যা প্রয়োজন তা করার জন্য প্রয়োজনীয় মানের পরিষেবার চাইতে আরও বেশি দেওয়ার জন্য এই ব্রোকার আত্মবিশ্বাসী।

Please rate this

মন্তব্য করুন